Web Academy

ফ্রিল্যান্সিং শিখুন বেকারত্বের অভিশাপ হতে নিজেকে মুক্ত করুণ ।

ফ্রিল্যান্সিং একটি সম্মানজনক মুক্ত পেশা তাই বর্তমান সময়ে তরুণদের কাছে এটি একটি আগ্রহের বিষয়। কারণ সবাই চায় নিজের সৃজনশীলতাকে কাজে লাগিয়ে উপার্জনের একটি ক্ষেত্র সৃষ্টি করতে । যা কেবলমা্ত্র ফ্রিল্যান্সিং এই সম্ভব।বর্তমানে আউটসোর্সিংয়ে বাংলাদেশের অবস্থান আশাব্যঞ্জক। দেশের অনেক তরুণ/তরুণী লেখাপড়ার পাশাপাশি ফ্রিল্যান্সার হিসেবে আউটসোর্সিংয়ের কাজ করছে। অনেকেই দেশের শীর্ষস্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা করে চাকরির আশায় না থেকে আউটসোর্সিং শুরু করছে। আউটসোর্সিংয়ের কাজ করতে গিয়ে অনেকে নতুন নতুন প্রোগ্রামিং, ওয়েব ডিজাইনিং ও গ্রাফিক্সের কাজ শিখছে। এতে প্রকৃতপক্ষে তরুণদের সামর্থ্য দিন দিন বাড়ছে। যার প্রতিফলন দেখা যাবে অদূর ভবিষ্যতে। শুধু ঢাকা নয়, ঢাকার বাইরেও অনেকে আউটসোর্সিংকে পেশা হিসেবে নিয়েছেন। কয়েক বছর ধরে এই তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক আউটসোর্সিংয়ে বাংলাদেশ যেভাবে উন্নতি করছে, তাতে আগামী কয়েক বছরে তা বৈদেশিক মুদ্রা আয়ের দিক দিয়ে সর্বোচ্চ স্থান দখলকারী গার্মেন্ট শিল্পকেও ছাড়িয়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। প্রতি বছরই এ খাতে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের হার উল্লেখযোগ্য হারে বাড়ছে।
দেশের তরুণেরা আউটসোর্সিংয়ের কাজে দক্ষতার স্বাক্ষর রাখছে। বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনকারী অন্যান্য শিল্পে অদক্ষ শ্রমিক হলেও কাজ চলছে তবে আউটসোর্সিংয়ের ক্ষেত্রে এ চিত্রটি পুরোপুরি উল্টো। এখানে যে যত বেশি দক্ষ, তার কাজ তত বেশি। বিদেশী বায়াররা কোনো জব বা কাজ পোস্ট করার পর দেশের তরুণরা অন্যদের সাথে পাল্লা দিয়ে বিড করে ইন্টারভিউ দিয়ে বায়ারদের মানসম্মত কাজ বুঝিয়ে দিচ্ছেন দেশের তরুণরা। বর্তমানে বাংলাদেশে ফ্রিল্যান্সিং বিষয়ক নামী বেনামী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ট্রেনিং ইন্সটিটিউট কাজ করে যাচ্ছে।
বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে নিজেদের মেধা দিয়ে বাংলাদেশের ফ্রিল্যান্সারগণ  এগিয়ে চলছে। যেটা প্রমাণ করছে সদিচ্ছা ও দক্ষতার প্রমাণ দেখাতে বাঙালী জাতি সবসময় সচেষ্ট । দেশে এখন স্কুল পড়ুয়া কিশোর-কিশোরী থেকে সর্বস্তরের মানুষ স্বাধীন পেশা হিসেবে আউটসোর্সকে বেছে নিচ্ছেন। বাড়িতে বসে উপার্জন করার মাধ্যম এখন হাতের মুঠোয়।
আমাদের দেশে ফ্রিল্যান্সিং পেশাকে সরকারী সহায়তা খুবই জরুরি। বিশেষ করে অধিক মাসিক ইন্টারনেট চার্জ, নেটের দুর্বল গতি এসব দিক একপ্রকার বাঁধা। যেখানে ভারত, পাকিস্তান, ফিলিপাইনের সরকার তাদের দেশে আউটসোর্স খাতকে উন্নয়নের একটি অংশ হিসেবে দেখেন এবং ইন্টারনেট মাসিক চার্জ অনেক কম, গতিও অনেক ভালো। আমাদের সরকারকেও আন্তরিক ও সময় উপযোগী পদক্ষেপ নিতে হবে। দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও বেকার সমস্যার দূরীকরণে আউটসোর্সের ভূমিকা অপরিসীম।ফ্রিল্যান্সার হয়ে উপার্জন করার জনপ্রিয় সাইটগুলো  ওডেস্ক, ফ্রিল্যান্সার ও ইল্যান্স সাইটে প্রতিদিন কাজের চাহিদা দেওয়া হয় । সেখান থেকেই আপনার মেধার বিস্তার ঘটিয়ে আপনি ঘরে বসেই আয় করতে পারেন।

স্বপ্ন এখনই বাস্তবে রুপান্তর করতে উদ্যোগ নিন, আপনার পথচলার সাথি হিসেবে পাশে আছে ওয়েব একাডেমী।আপনার প্রয়োজন শুধু মনোবল এবং সদিচ্ছা।

ভর্তি চলছে………………..
৩৫% ছাড়ে “ফ্রিলান্সিং অ্যান্ড ওয়েব ডেভেলপমেন্ট প্রশিক্ষণ ” এ স্বল্প সংখ্যক আসনে ভর্তি চলছে(অফার সীমিত সময়ের জন্য)
ক্লাস শুরু ০০-০০-২০১৬ ইং।

কোর্স সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন
http://www.webacademy-edu.com/?p=991

আরও বিস্তারিত জানতে আজই যোগাযোগ করুন
ঠিকানাঃ বাড়ী ৩৮, ২য় তলা, গারিব এ নেওয়াজ এভিনিউ, উত্তরা, ঢাকা ১২৩০
ফোন করতে পারেন এই নাম্বার এ ঃ ০১৯৫৬০০০০৫৬, ০১৭১২৬৪৩১৩৮
www.webacademy-edu.com

 

Comments

comments

0 Responses on "ফ্রিল্যান্সিং শিখুন বেকারত্বের অভিশাপ হতে নিজেকে মুক্ত করুণ ।"

Copyright © 2015 Web Academy. Sponsored By N.I BIZ SOFT